রবিবার , ০৫ নভেম্বর ২০১৭

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, কঠিন বাস্তবতার মুখে কঠিন সিদ্ধান্ত দরকার। যা করে দেখিয়ে বাংলাদেশ সরকার ইতিমধ্যে বিশ্ববাসীকে জানান দিয়েছে। মিয়ানমারে জাতিগত যে নিপীড়ন চলছে তা গণহত্যার সামিল। জীবন বাঁচাতে পালিয়ে সীমান্ত পার হওয়া প্রায় সাড়ে ৬ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশের মানবিকতার দ্বার উন্মোচন করেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
 
রবিবার বেলা সাড়ে ১০টায় হোটেল কক্স-টু-ডেতে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের ত্রাণ সামগ্রী ও আর্থিক অনুদান গ্রহণ শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।
 
ব্রিফিংকালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সমালোচনা করে সেতুমন্ত্রী আরো বলেন, মানবিকতার প্রকৃষ্ট উদাহরণ সৃষ্টি করায় বিশ্ববাসী শেখ হাসিনাকে নিয়ে প্রশংসা করছে। যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ফ্রান্স, তুরুস্ক, সৌদি আরব, ইরান ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়নসহ সবাই একবাক্যে বাংলাদেশের প্রশংসা করছে। কিন্তু, বিএনপির কাছে এসব কিছুই নয়। উল্টো তারা নানাভাবে বিরোধীতা করছে যা হাস্যকর।
 
তিনি বলেন, খালেদা জিয়া রোহিঙ্গাদের ত্রাণের নামে সাত দিনের জন্য ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অচল করে রাখেন। এরপরও সরকারের তরফ থেকে কিছু বলা হয়নি। কারণ দেরীতে হলেও অন্তত তিনি রোহিঙ্গাদের পাশে এসেছেন। কিন্তু, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এসে সারা দুনিয়ার মানুষ প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করলেও বেগম জিয়া একটি ধন্যবাদও দেননি। উল্টো সরকারের সমালোচনা করেছেন। এটি হীনমন্যতা ছাড়া আর কি হতে পারে? তিনি সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে ও বিশ্বমিডিয়ায় কভারেজ পেতে তার দলের নেতারা গাড়ি বহরে সাংবাদিকের গাড়িতে হামলা করেছে।

 রাজনীতি থেকে আরোও সংবাদ

আর্কাইভ