বুধবার , ১৬ জুন e ২০২১ |

কানাডায় এক মুসলিম পরিবারের চারজনকে ট্রাকচাপা দিয়ে হত্যার ঘটনাকে নেহাত দুর্ঘটনা বলতে নারাজ জাস্টিন ট্রুডো। তিনি একে সন্ত্রাসী হামলার সঙ্গে তুলনা করেছেন।

হাউজ অব কমন্সে কথা বলার সময় ট্রুডো বলেন, ‘এই হত্যাকাণ্ড কোনো দুর্ঘটনা ছিল না। সন্ত্রাসী হামলা।’ কানাডার দক্ষিণ-পূর্বের ছোট্ট শহর লন্ডনে এক ট্রাকচালক ট্রাফিক সিগন্যাল ভেঙে এক পরিবারের পাঁচজনকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই মারা যান চারজন।

মৃতদের মধ্যে রয়েছেন এক ৭৪ বছর বয়সী বৃদ্ধা, তার ৪৬ বছর বয়সী ছেলে সৈয়দ, সৈয়দের ৪৪ বছর বয়সী স্ত্রী এবং তাদের ১৫ বছর বয়সী মেয়ে। গুরুতর জখম হয়ে হাসপাতালে ভর্তি তাদের ৯ বছরের ছেলে। তার আঘাত গুরুতর হলেও প্রাণসংশয় নেই।

প্রথমে ভাবা হয়েছিল, এটা দুর্ঘটনা। কিন্তু প্রত্যক্ষদর্শীদের কথা শুনে পুলিশের মনে সন্দেহ জাগে। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, সেদিন লালবাতির নির্দেশনা অমান্য করে কালো ট্রাকটি দানবের মতো ওই পরিবারের দিকে ধেয়ে যায়।

আক্রান্তদের চেহারা ও পোশাক দেখে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছিল তারা মুসলিম। এ ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তির নাম পান নাথানিয়াল ভেল্টম্যান। তাকে হামলার স্থান থেকে ছয় কিলোমিটার দূরে একটি বিপণিবিতান থেকে আটক করা হয়। নাথানিয়াল অন্টারিও প্রদেশের বাসিন্দা।

 সারাবিশ্ব থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ