বৃহস্পতিবার , ০২ ডিসেম্বর ২০২১ |

প্রেমে ব্যর্থ হয়ে স্কুল ছাত্রীকে গলাকেটে হত্যা

  বৃহস্পতিবার , ২৮ অক্টোবর ২০২১

সুমন ঘোষ, টাঙ্গাইল : 
টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গাতে প্রেমে ব্যর্থ হয়ে সুমাইয়া আক্তার (১৫) নামে (স্কুলছাত্রী) প্রেমিকাকে গলা কেটে হত্যার পর আত্মহত্যার চেষ্টা  করা প্রেমিক মনিরের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে। নিহত মনির (১৭) উপজেলার ভাবলা গ্রামের মেহের আলীর ছেলে। বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।  
মনিরের খালা রোজিনা বলেন, সকাল সাড়ে ৭টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মনিরের মৃত্যু হয়। মনিরের লাশ এখন মর্গে নেওয়া হয়েছে। আইনী প্রক্রিয়া শেষে লাশ বাড়িতে নেয়া হবে।  
এরআগে বুধবার (২৭ অক্টোবর) সকালে কোচিং সেন্টারে যাওয়ার পথে সুমাইয়াকে উপজেলার এলেঙ্গা পৌরসভার শামসুল হক কলেজের সামনের একটি পরিত্যাক্ত ভবনের নিচতলায় ডেকে নিয়ে মনির তাকে গলা কেটে হত্যা করে। এরপর মনির নিজেই আত্মহত্যার চেষ্টা করে। ওই স্কুলছাত্রীর পাশেই রক্তাক্ত অবস্থায় মনির পড়ে থাকায় বিষয়টি অন্যদিকে মোড় নেয়। দিন শেষে ১০ঘন্টার মধ্যে টাঙ্গাইলের র‌্যাব সদস্যরা বিষয়টির রহস্য উন্মোচন করতে সক্ষম হন। এরপর থেকে মনির হাসপাতালে র‌্যাব হেফাজতে চিকিৎসাধীন ছিল।
র‌্যাব-১২, সিপিসি-৩ এ কোম্পানি কমান্ডার লে.আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান,গোয়ান্দারা তদন্ত করে জানতে পারে মনির নামের এক বখাটে সঙ্গে সুমাইয়ার প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। এই তথ্যর সুত্র ধরে হত্যার অনুসন্ধান করতে থাকে। মনিরের ঘনিষ্ঠদের জিজ্ঞাসাবাদ ও তাদের মোবাইলে থাকা ছবি-ভিডিও’র ভিত্তিতে উন্মোচিত হয় হত্যা রহস্য।
অভিযুক্ত প্রেমিক বাস হেলপার মনির উপজেলার মশাজান গ্রামের মেহের আলীর ছেলে। নিহত সুমাইয়া আক্তার উপজেলার পালিমা গ্রামের ফেরদৌসের মেয়ে। সে এলেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। তারা এলেঙ্গা কলেজ মোড় এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছিল।


 আইন-আদালত থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ