মঙ্গলবার , ২৫ জুন e ২০২৪

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান তেদরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস  করোনাজনিত বৈশ্বিক জরুরি অবস্থা প্রত্যাহারের  ঘোষণা দিয়েছেন। করোনাভাইরাসের কারণে জারি করা বৈশ্বিক জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। আজ শুক্রবার ডব্লিউএইচওর প্রধান তেদরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস এ ঘোষণা দিয়েছেন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এ ঘোষণাকে করোনাভাইরাস মহামারি শেষ হওয়ার পথে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। ভাইরাসটি নিয়ে ডব্লিউএইচও তাদের সর্বোচ্চ পর্যায়ের সতর্কতা জারির তিন বছরের মাথায় এসে এ ঘোষণা দিল।

সংস্থাটির কর্মকর্তারা বলছেন, ২০২১ সালের জানুয়ারিতে করোনায় মৃত্যু সর্বোচ্চ পর্যায়ে ওঠে। সে সময় বিশ্বে প্রতি সপ্তাহে গড়ে এক লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়। তবে গত ২৪ এপ্রিল শেষ হওয়া সপ্তাহে মৃত্যু হয় ৩ হাজার ৫০০ জনের।

ডব্লিউএইচওর প্রধান বলেন, করোনা মহামারিতে বিশ্বে অন্তত ৭০ লাখ মানুষের প্রাণহানি হয়েছে। তবে মহামারিতে মৃত্যুর প্রকৃত সংখ্যাটা দুই কোটির কাছাকাছি বলেই মনে করেন তিনি। তিনি আরও বলেছেন, করোনাভাইরাস এখনো উল্লেখযোগ্য একটি ঝুঁকি হিসেবে রয়ে গেছে।

তেদরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস বলেন, ‘গতকাল (বৃহস্পতিবার) ডব্লিউএইচওর ইমার্জেন্সি কমিটি ১৫তম বৈঠকে বসেছিল। বৈঠক থেকে আমাকে আন্তর্জাতিক পরিসরে উদ্বেগের জায়গা থেকে জনস্বাস্থ্য জরুরি পরিস্থিতি সমাপ্তির ঘোষণা দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। আমি তাদের এই পরামর্শ মেনে নিই। সে কারণে আশাবাদের সঙ্গে আমি ঘোষণা করছি যে একটি বৈশ্বিক স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থা হিসেবে কোভিড–১৯–এর ইতি ঘটেছে।’
                                                                                                                                                       -  বিবিসি

 স্বাস্থ্যবার্তা থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ