বুধবার , ১৭ এপ্রিল ২০২৪

২০ বিলিয়নের নিচে নামলো রিজার্ভ

  মঙ্গলবার , ১২ মার্চ ২০২৪

এশিয়ান ক্লিয়ারিং ইউনিয়নের (আকু) দেনা শোধের পর দেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ আবার কমে ২০ বিলিয়ন ডলারের নিচে নেমে গেছে। গত বৃহস্পতিবার আকুর দেনা বাবদ ১২৯ কোটি ডলার সমন্বয় করা হয়েছে। ফলে রবিবার নিট রিজার্ভ কমে দাঁড়িয়েছে প্রায় ১ হাজার ৯৯৯ কোটি ডলার। এর আগে গত বৃহস্পতিবার নিট রিজার্ভ ছিল ২ হাজার ১১৫ কোটি ডলার। এর আগেও রিজার্ভ কমে ২০ বিলিয়ন ডলারের নিচে নেমেছিল।সূত্র জানায়, বাণিজ্যিক ব্যাংক থেকে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ডলার ধার করে দেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ কিছুটা বাড়িয়েছিল। মূলত আকুর দেনা শোধের জন্য রিজার্ভ বাড়ানো হয়েছিল। দেনা সমন্বয় করার আগে গত বৃহস্পতিবার গ্রস রিজার্ভ ছিল ২ হাজার ৬৩৪ কোটি ডলার। গত জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি এই দুই মাসের আকুর দেনা সমন্বয় করার পর গ্রস রিজার্ভ কমে ২ হাজার ৫২৩ কোটি ডলারে নেমে এসেছে। একই সঙ্গে নিট রিজার্ভও কমেছে। গত বৃহস্পতিবার নিট রিজার্ভ ছিল ২ হাজার ১১৫ কোটি ডলার। রবিবার তা কমে ১ হাজার ৯৯৯ কোটি ডলারে নেমে এসেছে।কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্র জানায়, রোজার কারণে গত জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি মাসে আকুর সদস্য দেশগুলো থেকে বাংলাদেশের পণ্য আমদানি বেড়েছে। বিশেষ করে ভারত থেকে পণ্য আমদানি বেশি বেড়েছে। এতে আকুর দায়ও ২ কোটি ডলার বেশি পরিশোধ করতে হয়েছে। গত নভেম্বর-ডিসেম্বরে আকুর দেনা বাবদ শোধ করা হয়েছিল ১২৭ কোটি ডলার।এশিয়ান ক্লিয়ারিং ইউনিয়ন বা আকু হলো, কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলোর মধ্যকার একটি আন্তঃআঞ্চলিক লেনদেন নিষ্পত্তিব্যবস্থা। এশিয়ার ৯টি দেশের মধ্যে যে সব আমদানি-রপ্তানি হয়, এই ব্যবস্থার মাধ্যমে তা প্রতি দুই মাস পরপর নিষ্পত্তি হয়। অন্য দেশগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশের লেনদেন তাৎক্ষনিকভাবে সম্পন্ন হয়। আকুর সদস্য দেশগুলো হচ্ছে বাংলাদেশ, ভারত, ইরান, নেপাল, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, মিয়ানমার, ভুটান ও মালদ্বীপ। তবে দেনা পরিশোধে ব্যর্থ হওয়ায় সম্প্রতি এ ব্যবস্থা থেকে বাদ পড়েছে শ্রীলঙ্কা।

 অর্থ-বাণিজ্য থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ