বুধবার , ১৭ এপ্রিল ২০২৪

বরুড়ায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন

দেশকাল ডেস্ক   মঙ্গলবার , ২৬ মার্চ ২০২৪

বরুড়া (কুমিল্লা)প্রতিনিধিঃ

বরুড়ায় যথাযথমর্যাদায়  ২৬শে মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস ওজাতীয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে । দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধের পরে যে বিজয় এসেছিল ১৯৭১ সালের১৬ই ডিসেম্বর, তার শুরুটা হয়েছিল এই দিনেই। একটি জাতির স্বাধীনভাবে নিঃশ্বাস নেওয়ারগোড়াপত্তন হয়েছিল এই দিনে। তাই প্রতি বছর মার্চ মাসের ২৬ তারিখ আমাদের জন্য স্মরণীয়দিন। ১৯৭১ সালের ২৬শে মার্চের প্রথম প্রহরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসর্বশক্তি দিয়ে হানাদার বাহিনীকে প্রতিরোধ ও চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত লড়াইচালিয়ে যাওয়ার ডাক দিয়েছিলেন। এর পরের নয় মাসের যুদ্ধ দখলদার বাহিনীর হাত থেকে স্বাধীনদেশকে মুক্ত করার। এই উদ্দেশ্য সফল হয়েছে অনেক অশ্রু, অনেক রক্তের বিনিময়ে। ইতিহাসগড়ে ওঠে একদিকে দেশপ্রেম ও আত্মত্যাগের, অন্যদিকে নিষ্ঠুর অত্যাচার ও বর্বরতার। প্রতিটিস্বাধীনতা দিবসে আমাদের স্মরণ করতে হবে এই ইতিহাস। শহিদদের স্মরণে আমরা যত আয়োজনই করিনা কেন, যুদ্ধক্ষেত্রে নিজের জীবন বাজি রেখে লড়াই করার ঋণ শোধ হবে না কিছুতেই। আজ আমাদেরএই স্বাধীন চলন-বলন যাদের অবদানে, তাদের পথটা কিন্তু মোটেই সুগম ছিল না। স্বাধীনতাদিবস বাংলাদেশের মানুষের কাছে মুক্তির প্রতিজ্ঞায় উদ্দীপ্ত হওয়ার ইতিহাস। মুক্তিযুদ্ধেআত্মদানকারী শহিদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন ও তাদের স্বপ্ন বাস্তবায়নেরঅঙ্গীকারের মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন করে জাতি। যাদের রক্তের বিনিময়েআমাদের আজকের স্বাধীন বাংলাদেশ, যাদের ত্যাগের বিনিময়ে আমরা পেয়েছি একটি স্বাধীন রাষ্ট্র,সেই সাথে সকল মুক্তিযোদ্ধা ও বীরাঙ্গনা মা-বোনের প্রতি জানাই গভীর শ্রদ্ধা। কামনা করিজয় হোক যুগে-যুগে বাংলার মেহনতি মানুষের, বারবার ফিরে আসুক আমাদের মহান স্বাধীনতা দিবস।

 

নয় মাসের রক্তক্ষয়ীমুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জিত হয়। পরাধীনতার শিকল ভেঙে বেরিয়ে আসা সহস্রবছরের ঐতিহ্য-সমৃদ্ধ আত্মমর্যাদায় বলীয়ান একটি জাতির একজন হতে পেরে গর্বিত আমরা। কারণ১৯৭১ থেকে ২০২৪-এর পথপরিক্রমায় বাংলাদেশ আজ অন্য রকম এক বাংলাদেশ। বিশ্ব দরবারে মাথাউঁচু করে বেঁচে থাকার বাংলাদেশ। যে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে উন্নয়নশীলদেশের তালিকায় স্থান করে নিয়েছে। বিশ্ব নেতাদের মতে, বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল, কারোমতে, অফুরন্ত সম্ভাবনার এক বাংলাদেশ। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে বিজয় অর্জনের মাধ্যমেবিশ্বের বুকে প্রতিষ্ঠিত হয় স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ। পরাজিত হয় একসময়ের সমৃদ্ধ দেশপাকিস্তান। সেই পাকিস্তানের চেয়ে এখন প্রায় সব ক্ষেত্রেই এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। অনেকক্ষেত্রে ভারতের থেকেও এগিয়ে। বিভিন্ন পরিসংখ্যানেই তার প্রমাণ পাওয়া যায়। অথচ ভারত-পাকিস্তানেরঅনেক পরে জন্ম হয়েছে বাংলাদেশ রাষ্ট্রের। কিন্তু স্বাস্থ্য-শিক্ষার দিক দিয়ে ছাড়িয়েগেছে ভারত-পাকিস্তানকে। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে জিডিপি ও মাথাপিছু জিডিপি পাকিস্তানের চেয়েএগিয়ে আছে বাংলাদেশ।

দিবসটি উপলক্ষেআজ বরুড়ায় সূর্যেদয়ের সাথে সাথে পতাকাবিধি অনুসরণ পূর্বক সকল সরকারি আধা সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিতদপ্তর এবং বেসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে। ভোর ০৫:৫৬ মিনিটে৩১ বার তোপধ্বনিরমাধ্যমে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের সূচনা করা হয় এবং সূ্র্যোদয়ের সাথে সাথে কেন্দ্রীয়শহিদ মিনার ও বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়েছে। সকাল আটটায় আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং বাংলাদেশ পুলিশ আনসার ও ভিডিপি,ফায়ার সার্ভিস ও সিভিলডিফেন্স এবং বিএনসিসির সমন্বয়ে কুচকাওয়াজে অভিবাদন গ্রহন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীদের সমাবেশ,  জাতীয় সংগীত পরিবেশন,  ডিসপ্লে প্রদর্শন ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে। দুপুরদুইটায় মিলাদ মাহফিল মোনাজাত এবং শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবার কে সংবধর্না প্রদানকরা হয়েছে।  এদিন বরুড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তান্যু এমং মারমা মংয়ের সভাপতিত্বে  কর্মসুচীতেউপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা দঃ জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও  কুমিল্লা ০৮(বরুড়া) 'র সাংসদ এ জেড এম শফিউদ্দিনশামীম, বরুড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ এন এম মইনুল ইসলাম সহ উপজেলা প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণকর্মকর্তা ও কর্মচারী বৃন্দ। এদিন শহীদ মিনারে প্রশাসনের শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের পর পর কুমিল্লা দঃ জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ওবরুড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক সাংসদ নাছিমুল আলম চৌধুরী নজরুলের নির্দেশেবরুড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ, উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হামিদ লতিফ ভুঁইয়া (কামাল),  বরুড়া উপজেলা প্রেসক্লাব,  বরুড়া হাজী নোয়াব আলী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় তলাগ্রামত চ লাহা উচ্চ বিদ্যালয়,  বরুড়া সরকারি বালিকাউচ্চ বিদ্যালয় সহ পৌরসভার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বরুড়া ডিপ্লোমা এন্ড পল্লী চিকিৎসকএসোসিয়েশন,  বরুড়া বাজার ক্যামিষ্ট এন্ড ড্রাগিষ্টসমিতি সহ নানান রাজনৈতিক,  সামাজিক ও  সাংস্কৃতিক সংগঠন শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণকরেন। বিকাল তিনটায় কুমিল্লা ০৮(বরুড়া) ' র সাংসদ এ  জেড এম শফিউদ্দিন শামীমের নেতৃত্বে বরুড়া উপজেলাআওয়ামী লীগের একটি দল শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

দৈনিক দেশকাল/ আরএ / ২৬ই মার্চ , ২০২৪

 সারাবাংলা থেকে আরোও সংবাদ

ই-দেশকাল

আর্কাইভ